মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পাঠক কলাম

বিয়ের নামে সিলেটে আসলে হচ্ছেটা কী ?

সুরমা নিউজ ডেস্ক বোন বড় হয়েছে। বিয়ের কথা বার্তা চলছে। পারিবারিক ভাবে মতের মিল হওয়ার পর আকদ এর দিন ধার্য্য করা হয়। অনুষ্টানের শেষে ছেলের বাড়ি থেকে নাকি রাতে ৫০… বিস্তারিত »

মহান ‘মে দিবস’ প্রতিষ্ঠিত হোক শ্রমজীবি মানুষের অধিকার

প্রভাষক জ্যোতিষ মজুমদার : এ পৃথিবীতে যা কিছু সুন্দর, সৌন্দর্যময় সৃষ্টিশীল এবং নান্দনিক শিল্প, সবকিছুর মূলেই রয়েছে শ্রমজীবী মানুষের অবদান। পৃথিবীর মেহনতি শ্রমজীবী মানুষরাই আমাদের মহান সম্পদ এবং অহংকার। কিন্তু… বিস্তারিত »

রানা প্লাজা থেকে বলছি…

মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) এত লাশ ! এত লাশ ! আমার চার পাশ। মা তুমি কান্না – করছো না কেন ? তোমার শরীর শীতল হচ্ছে ! আমার পা… বিস্তারিত »

আমি বই ক্ষমতা দেই

মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) আমাকে বাঁচতে দাও , বইয়ের রাজ্যসভার মাঝে। চোখের পাতা হবে বইয়ের পাতা , আমার চোখ হবে শব্দ। আর আমি হবো , সেই বইয়ের চরিত্র।… বিস্তারিত »

জন্ম আমার ডাস্টবিনে

মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) কুকুরের চিৎকার এত রাতে ! কেন আসে ঘরে , সারাদিন কাজ করি হাটে মাঠে ঘাটে। আমি হলাম রাস্তার মানুষ,  রাস্তা আমার বাবা ।  রাস্তা আমায় কোলে রাখে ,  মায়ের আদরে। ঘর দেখবে!  ভাই ঘর!  আমার ঘর ডাস্টবিন ,  আমার খাবার ফেলে দেওয়া  ময়লা পঁচা রুটি !  না হয় পঁচা ভাতের প্যাকেট। আমার কষ্ট কাকে বলবো ,  কঠিন পৃথিবীর মাঝে। আমার বাবা কোথায় থাকে ,  জানি নাতো আমি। কোন মায়ের সন্তান আমি ,  জানি না তো আমি। রাতের মাঝে কুকুর আমায়,  জীবন বাঁচায় মানুষ ডেকে। ডাস্টবিনে পেয়েছে আমায় ,  লোকের মুখে শুনি । তাই তো আমি খাবার খাই,  ডাস্টবিনের পঁচা ময়লা ভাত। আমার সুখের সেন্ট,  ডাস্টবিনের গন্ধের মাঝে। ওরা আমার মায়ের আদর ,  জীবন গল্পে বাবার পরশ।… বিস্তারিত »

বৈশাখ আমার দুষ্টু সাদা শাড়ী

মো: গোলাম মোস্তফা দুঃখু নদীর পানি নিরব তোমায় কাছে পেয়ে । সকালের আকাশ সাদা তোমার হাসি দেখে। বৈশাখের শাড়ী  নদীর পানির বুকে খেলা করছে আপন সুরে তোমায় কাছে পেয়ে। আমার কষ্ট হয় এমন খেলা দেখে তোমার চিৎকার আমায় ডাকে বৈশাখ আমায় বাঁচাও আমি পানির বুকে হারিয়ে যাচ্ছি নিজের দেহ নিয়ে। চার পাশে বৈশাখের রং তুমি নিরব হয়ে আছো নদীর চার পাশে  সবুজের রং হয়ে খেলা করছো বৈশাখের মাঠে। বৈশাখের সুর আসে যায়,  তোমার আসা আর হবে না ।  বৈশাখের দিনে সাদা শাড়ী পড়ে , তুমি আর আসবে না ফিরে । ভালোবাসি শব্দ আর আসবে না,  আমার জীবনের বৈশাখের ছুটিতে।  ইলিশ পানতা নিয়ে রাগের পাহাড়ে বসে না বলা কথা বলবে না আর আমার নামহীন ঘরে।… বিস্তারিত »

আমার হাত কোথায়-আমি বাঁচবোতো

  মোঃ গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) নীল আকাশ দেখছে,  আমার নীরব কান্না। বিকেলের হিমেল হাওয়া আমার জীবনের কাল হলো । এত কষ্ট নিতে পারছি না,  নরম আমার দেহে। হাত আমার নিলো ছিঁড়ে,  বাস নামক ঘাতক। ও মা আমার দেহ গেলো ছিঁড়ে !  চোখে আমি দেখছি চেয়ে,  একি হলো আমার দেহে ।  হাতের রক্ত ডাকছে আমায় ,  রক্তের পানি নিয়ে।  রক্তের সাগর এলো এবার,  ঢাকা শহরে। রক্ত লাগবে রক্ত ! আমি রক্ত বিক্রি করবো ,  হাতের রক্ত – মনের রক্ত ।   আমার হাত নিয়েছে ড্রাইভার ঘাতক ঢাকা শহরে। হাসপাতালে নিতে হবে ,  না হয় বাঁচানো যাবে না। জীবন স্বপ্ন কেড়ে নিলো ,  ড্রাইভারের ভুলে । হাত আমার রাস্তায় পড়ে জীবনে বেঁচে কি আর হবে। নীল আকাশের দেশে । বিচার হবে না আমি জানি… বিস্তারিত »

সংসদ সদস্য মাহমুদুস সামাদ চৌধুরীর কাছে খোলা চিঠি

শরিফ আহমদ মুৃমিন: মাননীয় সংসদ সদস্য, আপনি অত্যন্ত সম্মানিত জনপ্রতিনিধি। আপনার এলাকা সিলেট ৩ আসনের সিলেট-সুলতানপুর সড়ক যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। গুরুত্বপূর্ণ  এই রাস্তা দিয়ে সিলাম, জালালপুর, গহরপুর, আজিজপুর,… বিস্তারিত »

ও আমাকে ধষর্ণ করেছে

  মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) শায়েস্তাগঞ্জের মেয়ে আমি  , নাম আমার বিউটি  । জীবন আমার গল্প বলে, সবুজ বাংলার বুকে । আমি থাকি মায়ের বুকে  , বিউটি লক্ষী হয়ে ।  বাবা আমায় আদর করে  , লক্ষী শোনা বলে । গরিব বলে নাইকো কষ্ট  , এই বাংলার বুকে । বাবা আমায় ভালোবাসে , দুই নয়নে রেখে । বিউটির  মা , ও বিউটির মা  লক্ষী আমার কোথায়  ? তোমার চোখে কান্না কেন ! বলবে না তুমি আমায়  । তোমার লক্ষী লাশ হয়েছে  , ধান ক্ষেতের মাঝে ।  রাতের আধারে মানুষ কুকুর  , খেয়েছে ওকে ছিঁড়ে । বাবা আমি এখানে , … বিস্তারিত »

জাগো বাংলা

মো: গোলাম মোস্তফা ( দুঃখু ) হে তরুণ তোমরা কোথায় আমরা এসেছি জাগো বাংলা তারুণ্যের গান নিয়ে । আমরা নতুন করে স্বপ্ন দেখাই  , অসহায় মানুষের মাঝে । ওরা বাঁচতে চায়  , ওরা খেতে চায় । রাতের আঁধারে ঘুমোতে চায় শান্তিময় মায়ের কোলে । পেটে জ্বালা বড় জ্বালা , চোখের পাতা এক হয় না এক মুঠো ভাতের জন্য । তোমরা আছো কোথায় আমরা এসেছি জাগো বাংলা ভাত মাছের ঝোল নিয়ে । আমরা তরুণ জাগো বাংলা আমরা চুপ করে বসে থাকবো না । নিজের জীবনের দাম দিয়ে , খাবার তুলে দিবো মুখে । তোমরা এই বাংলার ছেলে – মেয়ে , আমরা জাগো বাংলা হয়ে  । কি করে বসে থাকি ঘরে , তোমাদের চোখের কান্না দেখে । আমাদের তোমরা ক্ষমা করো  , সঠিক সময়ে- আসতে পারিনি তোমাদের ঘরের দারে  । এনেছি ভাত মুখে তুলে নাও  ,… বিস্তারিত »

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!