শুক্রবার, ২৪ মে, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
টাকার অভাবে সিলেটের উন্নয়ন আটকে আছে, মোমেনের সহায়তা চাইলেন আরিফ  » «   চোখের রোগে ভেঙে যাচ্ছে বিশ্বনাথের আলমের আলেম হওয়ার স্বপ্ন  » «   মৌলভীবাজার নিজ গলা কাটলেন ৩ সন্তানের জননী!  » «   সমকামিতায় রাজি না হওয়ায় শেরপুরে কিশোর হত্যা  » «   প্রথম ব্রিটিশ মুসলিম প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন সাজিদ জাভিদ?  » «   ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি: দেশে ফিরেছেন প্রাণে বেঁচে যাওয়া সিলেটের ২ জন  » «   বাংলাদেশকে ৯৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী শ্রীলঙ্কা মনে হচ্ছে বুলবুলের  » «   র‌্যাব-চোরাচালানি সংঘর্ষ, আটকদের ছাড়াতে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ !  » «   সিলেটে এবার সুবিধাবঞ্চিতদের ‘দুই টাকায় ঈদের খুশি’  » «   যেখানেই প্রতিবন্ধকতা সেখানেই ডিসি ফয়সাল, খুশি সিলেটের মানুষ  » «  

সিলেটে পিতার হাতে শিশু হত্যা, ঘাতক পিতা আটক

সুরমা নিউজ :
সিলেটের জৈন্তাপুরে ফিসারী হতে উদ্ধারকৃত শিশুর মৃতদেহের পরিচয় সনাক্তের ঘাতক পিতাকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ। আটক দেলোয়ারকে আদালতে প্রেরণ।

গত ১৯ এপ্রিল জৈন্তাপুর ফিসারী হতে শিশু উদ্ধারের পর ২০ এপ্রিল শিশুর মায়ের দায়ের করা মামলায় জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ খান মোঃ মইনুল জাকিরের সার্বিক নির্দেশনায় প্রযুক্তির সহযোগিতায় এবং গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে এস.আই মোঃ আজিজুর রহমানের নেতৃত্ব নোয়াখালী বিভাগের লক্ষীপুর জেলা হতে ঘাতক পিতা দেলোয়ার হোসেন কে আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃত দেলোয়ার কে রাতের মধ্যেই সিলেটের জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়।

পুলিশ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নিজের শিশু হত্যার দায় স্বীকার করায় গতকাল ২১ এপ্রিল রবিবার দুপুর ১২টায় বিশেষ নিরাপত্তায় আদালতে প্রেরণ করা হয়।

প্রসঙ্গ- ১৯ এপ্রিল শুক্রবার জৈন্তাপুর উপজেলা ফতেপুর ইউনিয়নের আওতাধীন সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাখিটিখি এলাকার ফিসারী হতে পুলিশ অজ্ঞাত এক শিশুর (ছেলে) মৃত দেহ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত শিশুর ছবি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর বেরিয়ে আসে শিশুটির প্রকৃত পরিচয়।

সংবাদ পেয়ে শিশুটির মা বিলকিছ বেগম ছুটে যায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে গিয়ে উদ্ধার হওয়া শিশুটি নিজের শিশু বলে সনাক্ত করে তিনি ২০ এপ্রিল জৈন্তাপুর মডেল থানায় হাজির হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে শিশু হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। যাহার নং-১৬, তারিখ ২০-০৪-২০১৯। মামলা দায়ের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই ঘাতক পিতাকে তার গ্রামের বাড়ী শাকচর হতে আটক করা হয়।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় এবং আমার সার্বিক দিক নির্দেশনায় ঘাতক পিতাকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজের ১১মাস বয়সী সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করায় ১৬৪ধারায় আসামীর বক্তব্য রেকর্ডের জন্য বিজ্ঞ আদালতে হাজির করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!