রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শবে বরাতের তারিখ নিয়ে সৃষ্ট বিভ্রান্তি গড়াল আদালতে

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
শাবান মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে অর্থাৎ আগামী ২০ এপ্রিল নাকি ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র শবেবরাত বা লাইলাতুল বরাত পালিত হবে সে বিষয়ে সৃষ্ট বিভ্রান্তি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। গত ৬ এপ্রিল শাবান মাসের চাঁদ দেখা গেছে দাবি করে হাইকোর্টে রিট করার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন মজলিসু রুইয়াতুল হিলাল ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি সংগঠনের সভাপতি আবুল বাশার মুহম্মদ রুহুল হাসান। আদালত রিট আবেদন করার অনুমতি না দিয়ে তাকে আগামী ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদরে বক্তব্য লিখিতভাবে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালকের কাছে দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি এফআরএম নামজুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রিট আবেদন করার অনুমতি দেননি। আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুল আলম।

আদালত বলেছেন, এটা ধর্মীয়ভাবে খুবই স্পর্শকাতর বিষয়। তাই এটাকে আদালতে টেনে না আনাই ভালো। আপনাদের (আবেদনকারী) বক্তব্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনে লিখিতভাবে জমা দিন। আগামী ১৭ এপ্রিল এবিষয়ে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে বলে শুনেছি। সেই পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারা (ইসলামিক ফাউন্ডেশন) যদি আপনাদের বক্তব্য বিবেচনায় না নেয়, তবে আমাদের কাছে আসবেন। তখন ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভা শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ওইদিন (৬ এপ্রিল) দেশের কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। তাই ৭ এপ্রিল দিনগত রাত থেকে অর্থাৎ ৮ এপ্রিল থেকে হিজরী ১৪৪০ সালের শাবান মাস গণনা শুরু হবে। সেই হিসেবে আগামী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত বা শবেবরাত পালিত হবে। কিন্তু মজলিসু রুইয়াতুল হিলাল ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি সংগঠনের নেতারা দাবি করেন, ৬ এপ্রিল দেশের বিভিন্ন জায়গায় চাঁদ দেখা গেছে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হলেও তারা আমলে নেয়নি। এই ঘোষণার পরই বিভ্রান্তি দেখা দেয়। এ অবস্থায় বিভ্রান্তি দূর করতেই গত ১৩ এপ্রিল শনিবার সকাল ১১টায় জরুরি বৈঠকে বসে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। এই বৈঠকে মজলিসু রুইয়াতুল হিলালের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, এই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাওলানা আবদুল মালেককে আহ্বায়ক করে ১০ সদস্যের একটি উপকমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটিকে আগামী ১৭ এপ্রিলের মধ্যে বিভ্রান্তি নিরসন করতে বলা হয়েছে। এই কমিটির সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত আগের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে শবেবরাত পালনের সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে। এই উপকমিটি আগামী ১৭ এপ্রিল আবারো বৈঠকে বসবে। এই কমিটি সংশ্লিষ্টপক্ষের (৬ এপ্রিল চাঁদ দেখার দাবিকারী) বক্তব্য যাচাই করে সিদ্ধান্ত জানাবে।

এ অবস্থায় আজ ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে রিট আবেদন করার অনুমতি চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানানো হয়। অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান আবেদনটি উপস্থাপন করেন। তবে আদালত তাদের অনুমতি দেননি। আদালত আগামী ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেন।

১৭ এপ্রিলের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে। এর আগ পর্যন্ত আগের সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!