রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ওসমানীনগরে কালবৈশাখী ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

ওসমানীনগর প্রতিনিধি:
সিলেটের ওসমানীনগরে কালবৈশাখী ঝড়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ২শতাধিক কাচা ঘরবাড়ির ক্ষতি হয়েছে। ভেঙে এবং ওপড়ে পড়েছে সহস্রাধিক গাছপালা। নষ্ট হয়েছে জমির পাকা ফসল। পল্লী বিদ্যুতের অন্তত ১২টি খূঁটি ভেঙ্গে যাওয়ায় এবং বিদ্যুৎ বিতরণ লাইনের শতাধিক স্থানে গাছ পড়ে লাইন ছিড়ে যাওয়ায় সকাল থেকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে এলাকাবাসী। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এলাকার গরীব অসহায় লোকজন।

জানা যায়, রবিবার সকালে প্রচন্ড বেগে বয়ে যাওয়া কাল বৈশাখী ঝড়ের তান্ডবে তছনছ হয়ে গেছে ওসমানীনগরের প্রকৃতি। ঝড়ের তান্ডবে ৮ইউনিয়নের ২শতাধিক কাচা ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তার মধ্যে ৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১টি মসজিদ ও একটি ইউনিয়ন পরিষদও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। গরীব অসহায় অনেকের টিনের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে এবং অনেকের কাচাঘর মাটির সাথে মিশে গেছে। সহ¯্রাধিক ছোট বড় গাছপালা ভেঙে পড়ায় অনেক স্থানে যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যাঘাত সৃষ্টি করেছে। শতাধিক স্থানে বিদ্যুৎ লাইন ছিড়ে যাওয়ায় এবং খুঁটি ভেঙে যাওয়ায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী। পাকা ধানেরও ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়েছে। ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া, ময়নুল আজাদ ফারুক, আবদুর রব, এমসি রাসুল খালেক, তাজ মোহাম্মদ ফখর, ইমরান রব্বানী ও আবদুস সামাদের সাথে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

বুরুঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এমজি রাসুল খালেক বলেন, ঝড়ের কারণে আমার ইউনিয়নের শতাধিক ঘরবাড়ির ক্ষতি হয়েছে। আমার ইউনিয়ন ভবনের টিনের চালও উড়ে গেছে।

উমরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বলেন, আমার ইউনিয়নের ২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টিনের চাল উড়ে গেছে। ১০/১৫টি বসত ঘর ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!