রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ওসমানীনগরে গণধর্ষণের আসামী মিনার আলীর স্বীকারোক্তি

ওসমানীনগর প্রতিনিধি:
ওসমানীনগরের সাদিপুরে কিশোরী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী মিনার আলী ওরফে কওছর মিয়া (২৬) আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। শনিবার সিলেট সিনিয়ার জুডিশিয়াল আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেটের নিকট এ স্বাকারোক্তি প্রদান করে। গত বুধবার বিকেলে সিলেট কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে মিনার আলীকে গ্রেফতার করে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।

মিনার উপজেলার সাদীপুর ইউপির রহমতপুর গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে। গ্রেফতারকৃত মিনারকে পুলিশ বুধবারই সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত দুইদিনের রিমান্ড মনজুর করেন।
ওসমানীনগর থানা এসআই মমিনুল ইসলাম (পিপিএম) স্বীকাররোক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সে ঘটনার সাথে জড়িত ছিল। এ ব্যাপারে সে আদালতে স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৫ মার্চ রাতে গাফলা (আঞ্চলিক ভাষায়) খেলার অজুহাতে রহমতপুর গ্রামের লতিব মিয়ার ছেলে মিনার আলী ও পাশ্ববর্তী উত্তর কালনীচর গ্রামের মকলু মিয়া ধর্ষিতা কিমোরির বাড়িতে যায়। রাতের খেলার এক ফাকে ঐ কিশোরী ছাড়া ঘরের অন্য সবাইকে চায়ের সাথে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে খাইয়ে অচেতন করে ফেলে মিনার ও মকলু। মধ্য রাতে মিনার ও মকলু মিয়া কিশোরীকে মুখ বেঁধে জোরপূর্বক দু’জন মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। গত ২৯ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতেই ভিকটিমের ভাই বাদি হয়ে ওসমানীনগর থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মিনার ও মখলু মিয়াকে আসামী করে ওসমানীনগর থানায় মামলা দায়ের করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!