রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে আ.লীগের ৩ জন ও বিদ্রোহী ৪ প্রার্থী নির্বাচিত

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার থেকে:
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে মৌলভীবাজারের ৭টি উপজেলার ৩টি আওয়ামীলীগ প্রার্থী ও বাকী ৪টি বিদ্রোহী প্রাথীরা বিজয়ী হয়েছেন। জেলার ৭টি উপজেলার মধ্যে একমাত্র সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের কামাল হোসেন।
বাকি ৬টি উপজেলার মধ্যে জুড়ী উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এম.এ. মহিত ফারুক। তিনি আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ২৮২ ভোট। আ.লীগের গুলশান আরা মিলি নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৭৭৬ ভোট।
কুলাউড়ায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী শফি আহমদ সলমান। তিনি আনারস প্রতীকে ৫৪ হাজার ৭টি ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন আ.লীগের আসম কামরুল ইসলাম। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৪ হাজার ১৩২ ভোট।
আর বড়লেখা উপজেলায় আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সোয়েব আহমদ ঘোড়া প্রতীকে ৪৩ হাজার ৪৪ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আ.লীগের রফিকুল ইসলাম সুন্দর পেয়েছেন ২০ হাজার ৫৭৩ ভোট।
রাজনগর উপজেলায় জয়ী হয়েছেন আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজান খান। তিনি কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ২৭ হাজার ৩৭৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ.লীগের আছকির খান বিকেল তিনটায় কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন।
কমলগঞ্জ উপজেলায় আ.লীগের প্রার্থী অধ্যাপক রফিকুর রহমান জয়ী হয়েছেন। তিনি নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯ হাজার ১৫১ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমতিয়াজ আহমদ বুলবুল আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ১৯ হাজার ৫৫১ ভোট।
শ্রীমঙ্গল উপজেলায় আ.লীগের প্রার্থী রনধীর কুমার দেব নৌকা প্রতীক নিয়ে জয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫১ হাজার ৪৪০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৫৮০ ভোট।
মৌলভীবাজার জেলার সাত উপজেলায় মোট ভোটার ১২ লাখ ৯৭ হাজার ৫১১ জন। এর মধ্যে ৬ লাখ ৫২ হাজার ২৬৪ পুরুষ এবং ৬ লাখ ৪৫ হাজার ২৪৭ নারী ভোটার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!