মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক খানের নামে সিলেটে রাস্তা নামকরণের দাবি প্রবাসীদের  » «   মেয়েকে বলেছি তোমার মা আল্লাহর কাছে, আমিই এখন তোমার মা এবং বাবা  » «   সিলেটে ধর্ষণ ও সন্তানদেরকে গুম করে ফেলার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার  » «   ১৪দিনেও উদ্ধার হয়নি ব্রিটিশ কন্যার স্বামী, মামলা নিচ্ছে না পুলিশ  » «   যুক্তরাজ্যে দয়ামীর ইউনিয়ন এডুকেশন ফোরাম ইউকের আত্মপ্রকাশ  » «   সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৪  » «   সিলেটসহ সাত জেলায় সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী-সন্তানসহ ১০ জনের মৃত্যু  » «   সিলেটে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত যারা  » «   নৌকার প্রার্থী আতাউরের বাড়িতে বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী পল্লব!  » «   হবিগঞ্জে প্রেমিকের সাথে অভিমান করে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা  » «  

হবিগঞ্জে চা-কফি’র পরিবর্তে ৩ গাড়ি বালু প্রেরণ, ব্যবসায়ী গ্রেফতার

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা:
চা-কফি ও কফি মেশিনের পরিবর্তে ৩ ট্রাক ভর্তি ২৪ হাজার কেজি বালু প্রেরণ করে রোজ ক্যাফে কোম্পানির সাথে প্রতারণা করেছেন হবিগঞ্জের এক ডিলার। হাজী হরমুজ আলী নামে ওই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে বালুর বাক্স ভর্তি গাড়িগুলো জব্দ করে পুলিশ। এ সময় রোজ ক্যাফে বাংলাদেশ লিমিটেডের অপারেশন ডিরেক্টর রফিকুল ইসলাম খানের দায়ের করা মামলায় ওই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌধুরী বাজার পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক (এসআই) উত্তম কুমার রায় জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ হবিগঞ্জ শহরের ‘আদি খাঁজা বেনু’ নামে এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রোজ ক্যাফে কোম্পানির পরিবেশক হিসেবে সিলেট, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মনবাড়িয়া ও কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে নিয়োজিত ছিল। সম্প্রতি ডিলার এবং কোম্পানির মধ্যে মতভেদ দেখা দিলে ডিলারশীপ বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।

জামানতের টাকা ফেরত পেয়ে গত ৯ মার্চ কোম্পানির মালামাল ফেরত পাঠান ডিলার। এতে ১২ হাজার প্যাকেট চা, ১২ হাজার প্যাকেট কফি এবং ৩৪টি কফির মেশিন থাকার কথা ছিল। কোম্পানির হিসাবমতে যার বর্তমান বাজার মূল্য ১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। কিন্তু গাড়িতে পাওয়া যায় ২৪ হাজার কেজি বালু ও অনেকগুলো খালি বাক্স। পরে তারা (কোম্পানী) এগুলো হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় প্রেরণ করেন।

হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সহিদুর রহমান জানান, প্রতারণার অভিযোগে ৯ মার্চ কোম্পানির অপারেশন ডিরেক্টর রফিকুল ইসলাম খান বাদী হয়ে হাজী হরমুজ আলী এবং তার ছেলে তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ হরমুজ আলীকে রাতে গ্রেপ্তার করলেও তার ছেলে পলাতক রয়েছে।

মামলার বাদী রফিকুল জানান, এত বড় প্রতারণা এর আগে কোনো কোম্পানির সাথে হয়েছে বলে তার জানা নেই। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তসাপেক্ষ্য বিচার দাবি জানান তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!