মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক খানের নামে সিলেটে রাস্তা নামকরণের দাবি প্রবাসীদের  » «   মেয়েকে বলেছি তোমার মা আল্লাহর কাছে, আমিই এখন তোমার মা এবং বাবা  » «   সিলেটে ধর্ষণ ও সন্তানদেরকে গুম করে ফেলার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার  » «   ১৪দিনেও উদ্ধার হয়নি ব্রিটিশ কন্যার স্বামী, মামলা নিচ্ছে না পুলিশ  » «   যুক্তরাজ্যে দয়ামীর ইউনিয়ন এডুকেশন ফোরাম ইউকের আত্মপ্রকাশ  » «   সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৪  » «   সিলেটসহ সাত জেলায় সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী-সন্তানসহ ১০ জনের মৃত্যু  » «   সিলেটে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত যারা  » «   নৌকার প্রার্থী আতাউরের বাড়িতে বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী পল্লব!  » «   হবিগঞ্জে প্রেমিকের সাথে অভিমান করে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা  » «  

ব্রিটেনে আওয়ামী লীগ-বিএনপিতে সিলেটীদের আধিপত্য

জুবায়ের আহমেদ:
দেশপ্রেমের তাড়না । তা থেকেই প্রবাসে রাজনীতি। দেশের গন্ডি পেরিয়ে প্রবাসেও দেশীয় রাজনীতির পদচারণা। দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরেই বহির্বিশ্বে চলছে রাজনৈতিক চর্চা । ব্রিটেনে বাংলাদেশী জনগোষ্টির অনেকেই নিজেদের শত ব্যস্ততা উপেক্ষা করে ব্রিটেনে দেশীয় রাজনীতির চর্চা অব্যাহত রেখেছেন। বহির্বিশ্বে বাংলাদেশী রাজনীতির অন্যতম বড় জায়গা ব্রিটেন। আর এখানকার প্রধান দুইটি রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপির শীর্ষ প্রায় সব পদে রয়েছে সিলেটীদের আধিপত্য।

জানা যায়, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ছাড়া দুটি দলের নেতৃত্বে থাকা সবাই সিলেটী। যুক্তরাজ্য শাখার সাধারন সম্পাদক সাজিদুর রহমান ফারুকের বাড়ি জগন্নাথপুর থানার সৈয়দপুর গ্রামে। ৯ জানুয়ারী ২০১১ সালে দীর্ঘ ১৩ বছর পর অনুষ্টিত যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সম্মেলনে দলটির সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামানের বাড়ি ওসমানীনগরের বুরুঙ্গা ইউনিয়নের তিলাপাড়া গ্রামে।  যুক্তরাজ্য যুবলীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম মধুর বাড়ী ওসমানীনগর উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়নের রাউতখাই গ্রামে। সাধারন সম্পাদক সেলিম আহমেদ খান এর গোলাপগঞ্জ উপজেলার বুধবারি ইউনিয়নের কালিজুরি গ্রামে। ২০১২ সালের ২০ জুন এক সম্মেলনের মাধ্যমে তারা যুবলীগের নেতৃত্বে আসেন। এছাড়া যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগ সভাপতি তামিমের বাড়ী জেলার জকিগঞ্জ।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেকের বাড়ী দক্ষিন সুরমা উপজেলার তেতলী গ্রামে। সাধারন সম্পাদক কয়সর এম আহমদের বাড়ী জগন্নাথপুর উপজেলার সিলিমপুর গ্রামে। ২০১৫ সালের ১৯ জুলাই দলীয় চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার নির্দেশে তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম সাক্ষরিত কমিটিতে তারা দলটির যুক্তরাজ্য শাখার দায়িত্বে আসেন। যুক্তরাজ্য যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেনের বাড়ী সিলেটের বিশ্বনাথের তাতিকোনা গ্রাম। ২০১৭ সালের ১৯ ডিসেম্ভর বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশক্রমে গঠিত যুক্তরাজ্য যুবদলের কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়িত্বে আসেন এই যুবনেতা ।স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সাহিন আহমেদ নাসিরের বাড়ী মৌলভী বাজারের দিগিরপার গ্রামে। সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেনের বাড়ী জগন্নাথপুর । ২০১৫ সালের ১০ জুলাই সম্মেলনের মাধ্যমে নেতৃত্বে আসেন তারা।

এছাড়া অন্যান্য রাজনৈতিক দল জাতীয় পার্টি, জামায়াতে ইসলামী,খেলাফত মজলিশ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ব্রিটেন শাখার শীর্ষ পদ ও রয়েছে সিলেটিদের দখলে। শত ব্যস্ততা উপেক্ষা করে দেশীয় রাজনীতি চর্চা করছেন প্রবাসীরা। শুধু পদ আগলে থাকা নয় দলীয় সকল কর্মসূচী দেশের ন্যায় এখানেও তারা চালিয়ে যাচ্ছেন। যদিও বিগত কিছুদিন যাবত তাদের কর্মকান্ড প্রশ্নের সম্মুখীন। কমিউনিটির অনেকেই বলেছেন, ব্রিটেনের রাজনীতি ও দেশীয় রাজনীতি দুটোই আমরা সিলেটিদের দখলে। রাজনীতিতে একে অপরের বিরোধিতা করলেও জাতীয় স্বার্থে আমরা একই মঞ্চে উঠে একাত্মতা পোষন করেছি। কিন্তু বর্তমান পেক্ষাপট সম্পূর্ণ ভিন্ন। দেশ থেকে নির্দেশনা পেয়ে এখন সবাই একে অপরকে ঘায়েল করতে ব্যতিব্যস্থ। এতে আমরা সাধারণ রাজনৈতিক কর্মী ও প্রবাসীরা  বঞ্চিত হচ্ছি ন্যায্য দাবী দাওয়া থেকে।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
1.3kTweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!