রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
এবার ওমান থেকে নির্যাতিত হয়ে ফিরলেন সুনামগঞ্জের নারী  » «   বসন্ত উৎসব মাতাতে সিলেট আসছেন কুমার বিশ্বজিৎ  » «   ওসমানীর জন্ম-মৃত্যুবার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের দাবি  » «   কুড়িয়ে পাওয়া টাকা মালিকের হাতে দিলেন জগন্নাথপুরের হাফিজ জিয়াউর  » «   মেহেদীর রং না মুছতেই সিলেটে ঘাতক বাস কেড়ে নিলো তাসনিমকে  » «   নাসায় ডাক পেলো বিশ্বের ৭৯ দেশকে পেছনে ফেলা শাবির ‘টিম অলিক’  » «   সিলেটের ভাষা নিয়ে যারা ব্যাঙ্গ করেন তাহারা নির্বোধ (ভিডিও) : ভারতীয় অধ্যাপক  » «   সিলেটে চুন দিয়ে জাহেদের চোখ নষ্ট করা ঘাতক ছানুর ফাঁসির দাবি  » «   বিনা খরচে রেমিট্যান্স যোদ্ধা প্রবাসীদের লাশ দেশে যাবে : অর্থমন্ত্রী  » «   সিলেটে এসে পৌঁছেছে লন্ডনী ফুটবল টিম  » «  

মসজিদে গুলি চালিয়ে ছয় মুসল্লিকে হত্যা, কানাডীয় সেই যুবকের যাবজ্জীবন

সুরমা নিউজ ডেস্ক :
দুই বছর আগে কিবেক শহরের একটি মসজিদে ঢুকে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে ৬ মুসল্লিকে হত্যা ও আরও ৫ জনকে গুরুতর আহত করার দায়ে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে কানাডার একটি আদালত। সাজাপ্রাপ্ত ২৯ বছর বয়সী আলেক্সান্দ্রে বিসোনেতে কারাগারে ৪০ বছর কাটানোর আগে প্যারোলে মুক্তির জন্য বিবেচিত হবেন না।

সরকারী কৌঁসুলিরা অভিযুক্ত এ যুবকের দেড়’শ বছরের কারাদন্ড চেয়েছিলেন। বিচারক ফ্রাঙ্কো হুট রাজি হলে এটিই হতো কানাডায় কোন অপরাধীকে দেয়া সর্বোচ্চ কারাদন্ড । রায়ে কিবেকের সর্বোচ্চ আদালতের এ বিচারক বলেছেন, ‘সাজা কখনোই প্রতিহিংসাপরায়ণ হতে পারে না।’ কানাডার আইনে খুনীর যাবজ্জীবন ও ২৫ বছরের আগে শর্তাধীনে মুক্তি (প্যারোল) না দেয়ার বিধান রয়েছে।

দুই বছর আগে, ২০১৭ সালের ২৯ জানুয়ারি রাতে বিসোনেতে কিবেকে ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে ঝড়ের বেগে প্রবেশ করে নির্বিচারে গুলি চালান। এ ঘটনায় নামাজ পড়তে আসা ৬ ব্যক্তি নিহত ও আরও অন্তত ৫ জন গুরুতর আহত হন। আহতদের মধ্যে আয়মান দেরবালি নামে একজন এখন পক্ষাঘাতগ্রস্ত।

গ্রেফতার বিসোনেতে ২০১৭ সালের মার্চেই নিজের অপরাধ স্বীকার করে নেন। ‘যা করেছি তার জন্য লজ্জিত আমি, আমি সন্ত্রাসী নয়, ইসলামভীতিও নেই আমার,’ বলেছিলেন তিনি। বিসোনেতে পূর্বপরিকল্পিতভাবেই ওই হামলা চালিয়েছিলেন বলে রায়ে জানান বিচারক ফ্রাঙ্কো। সাজা দেয়ার ক্ষেত্রে কানাডীয় এ যুবকের মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টিও বিবেচনায় নেয়া হয়েছে, বলেছেন তিনি।

এদিকে, তিউনিশিয়ার একটি আদালত সাত জিহাদিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে। ২০১৫ সালে একটি জাদুঘর ও সমুদ্র সৈকতে হামলা চালানোর দায়ে তাদের এ সাজা দেয়া হয়। এসব হামলায় পর্যটকসহ অনেকের প্রাণহানি ঘটে।

শনিবার প্রসিকিউটররা এ কথা জানান। এ দুই মামলার পৃথকভাবে বিচার করা হয়। প্রসিকিউশন মুখপাত্র সোফিয়েনি স্লিতি জানান, আদালত কয়েকজন আসামিকে ৬ থেকে ১৬ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!