রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
এবার ওমান থেকে নির্যাতিত হয়ে ফিরলেন সুনামগঞ্জের নারী  » «   বসন্ত উৎসব মাতাতে সিলেট আসছেন কুমার বিশ্বজিৎ  » «   ওসমানীর জন্ম-মৃত্যুবার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের দাবি  » «   কুড়িয়ে পাওয়া টাকা মালিকের হাতে দিলেন জগন্নাথপুরের হাফিজ জিয়াউর  » «   মেহেদীর রং না মুছতেই সিলেটে ঘাতক বাস কেড়ে নিলো তাসনিমকে  » «   নাসায় ডাক পেলো বিশ্বের ৭৯ দেশকে পেছনে ফেলা শাবির ‘টিম অলিক’  » «   সিলেটের ভাষা নিয়ে যারা ব্যাঙ্গ করেন তাহারা নির্বোধ (ভিডিও) : ভারতীয় অধ্যাপক  » «   সিলেটে চুন দিয়ে জাহেদের চোখ নষ্ট করা ঘাতক ছানুর ফাঁসির দাবি  » «   বিনা খরচে রেমিট্যান্স যোদ্ধা প্রবাসীদের লাশ দেশে যাবে : অর্থমন্ত্রী  » «   সিলেটে এসে পৌঁছেছে লন্ডনী ফুটবল টিম  » «  

সিলেটে হিজাব খোলা নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে উত্তেজনা (ভিডিওসহ)

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
সিলেটের একটি পরীক্ষাকেন্দ্রে শনিবার এসএসসি গণিত পরীক্ষায় দশ মিনিট পরে প্রশ্নপত্র দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে। প্রশ্নপত্র দেরিতে পৌঁছানোর কারণে দশ মিনিট পরে পরীক্ষা শুরু হলেও শেষ হয় নির্ধারিত সময়েই। এ নিয়ে বিক্ষোভ করেন পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা। এসময় মেয়ে শিক্ষার্থীদের হিজাব খুলে পরীক্ষায় অংশ নিতে বললে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির উদ্রেক হয়।

সিলেট নগরের কিশোরীমোহন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় পরীক্ষাকেন্দ্রে গতকাল শনিবার ( ৯ ফেব্রুয়ারি) এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে কয়েকটি কক্ষে প্রথমে ২০১৬ সালের প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হয় বলেও অভিযোগ করেন পরীক্ষার্থীরা। বিষয়টি জানানোর পর তড়িঘড়ি করে সে প্রশ্নপত্র ফেরত নিয়ে নতুন প্রশ্নপত্র দেয়া হয়। এতে করে তাদের বেশ সময় নষ্ট হয় যা পুষিয়ে দেয়া হয়নি।

নাম প্রকাশে অনীহা প্রকাশ করে এক শিক্ষার্থী জানান, হলে নির্দিষ্ট সময়ের অনেক পরে আমাদের প্রশ্নপত্র দেয়া হয়। কিন্তু আমাদের অনুরোধের পরও শেষ মুহূর্তে এই সময় আমাদের দেয়া হয়নি। তাছাড়া হলে ঢুকেই আমাদের হিজাব খুলে ফেলার জন্য বলা হয়। বিষয়টি নিয়ে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

কেন্দ্র সচিব জানিয়েছেন, লিখিত অভিযোগগুলো পরীক্ষা নিরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর হিজাব খোলার বিষয়ে তিনি বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে অনেক মেয়ে শিক্ষার্থী হিজাবের অপব্যবহার করেন। হিজাবের আড়ালে অনেকে হেডফোনদিয়ে নকল করার চেষ্টা করেন। যে কারণে শুধু পরীক্ষা কেন্দ্রে কান বের করে হিজাব রাখার জন্য বলা হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!