শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বালাগঞ্জের মানুষ বিপ্লবী: মির্জা ফখরুল ইসলাম

সুরমা নিউজ :
সিলেটের বালাগঞ্জ নিহত ছাত্রদল নেতা সোহেলের কবর জিয়ারত ও পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতারা।  পরে সেখানে গ্রামের মাঠে শোকসভায় বক্তব্য রাখেন তারা। বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদারের সভাপতিত্বে এবং জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামাল ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান মুজিবের পরিচালনায় শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বালাগঞ্জের মানুষ বিপ্লবী উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘ভোটের দিন সোহেলের উপর নয়, ১৮ কোটি মানুষের উপর গুলি করা হয়। ব্যক্তিগত কোনো কাজে সোহেল ভোটকেন্দ্রে যায়নি, গিয়েছিল গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সংগ্রামে শরিক হতে।’

সোমবার বিকেলে বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সায়েম আহমদ সোহেলের শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। গেল ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে গুলিতে নিহত হন সোহেল। আজ সোমবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা সোহেলের কবর জিয়ারত ও পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে সিলেট সফরে আসেন। দুপুরে হযরত শাহজালাল (রহ.) ও হযরত শাহপরান (রহ.) এর মাজার জিয়ারত শেষে তারা বালাগঞ্জে যান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘শহীদের রক্ত বৃথা যায় না, সোহেলের রক্তও বৃথা যাবে না।’

জাসদের সভাপতি আ স ম আব্দুর রব বলেন, ‘ভোটকেন্দ্রে পুলিশ গুলি করবে, এজন্য তো দেশ স্বাধীন হয়নি।’

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য শফি আহমদ চৌধুরী, ‘নিখোঁজ’ ইলিয়াস আলীর ভাই আসকির আলী, নিহত ছাত্রদল নেতা সোহেলের চাচাতো ভাই লুৎফুর রহমান।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান বীরপ্রতীক, সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন মিলন, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য মিজানুর রহমান চৌধুরী, জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীম, সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সহসভাপতি কাইয়ুম চৌধুরী, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ফখরুল ইসলাম ফারুক, যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুর রব ফয়সল, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আজমল বখত সাদেক, সিসিক কাউন্সিলর কয়েস লোদী, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদাল মিয়া, ওসমানীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ময়নুল হক চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি নেতা রুপা রাজা চৌধুরী প্রমুখ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!