শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পাঁচ মন্ত্রীর কাছে সিলেটবাসীর ১০ প্রত্যাশা

সুরমা নিউজ:
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সিলেট সফরে এসে এ অঞ্চলের উন্নয়নের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকার গঠনের পর কথা রেখেছিলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। এ কারণে সিলেটবাসী পেয়েছিল অর্থ ও শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী। একইসঙ্গে অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বও পান সিলেট বিভাগের এক সংসদ সদস্য।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নজরদারি ও তিন মন্ত্রীর চেষ্টায় সিলেট বিভাগে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে, অনেক উন্নয়ন প্রকল্প রয়েছে বাস্তবায়নাধীন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর নতুন মন্ত্রিসভায় সিলেট থেকে ঠাঁই পেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী, বন ও পরিবেশমন্ত্রী, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী।

মন্ত্রিসভায় সিলেট বিভাগের প্রতিনিধিত্ব বাড়ায় উন্নয়ন নিয়ে বেড়েছে সিলেটবাসীর প্রত্যাশাও। পাঁচ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর হাত ধরে আগামী পাঁচ বছরে এ অঞ্চলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে দশটি প্রকল্পের বাস্তবায়ন চান সিলেটবাসী। এর মধ্যে নবগঠিত মন্ত্রিসভার পরররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের কাছে সিলেটবাসীর সবচেয়ে বড় উন্নয়ন প্রত্যাশার মধ্যে রয়েছে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ।

সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী হওয়ায় তার কাছে প্রত্যাশা আইসিটি পার্কের কাজ দ্রুত সম্পাদন করে এটি চালু করা। এসঙ্গে সিলেটে স্পেশাল ইকোনমিক জোন প্রতিষ্ঠার বিষয়টি এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের দীর্ঘদিনের দাবি।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর কাছে প্রত্যাশা- সিলেট অঞ্চলের একমাত্র বিমানবন্দর ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে উন্নীত এবং এখান থেকে সরাসরি ফ্লাইটের সংখ্যা বৃদ্ধি করা।

প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীর কাছে সিলেটবাসী চান বিনিয়োগে বিশেষ কর রেয়াত সুবিধা। এ অঞ্চলের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের কাছে তারা চান- এখানকার পর্যটনের উন্নয়নে প্যাকেজ প্রকল্প, অভ্যন্তরীণ যোগাযোগব্যবস্থার উন্নয়ন, পরিবেশ বিনষ্টকারী চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ, রেলের উন্নয়ন, এতে নতুন বগি সংযুক্ত করা, সিলেট-ঢাকা ও সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে অত্যাধুনিক এক্সপ্রেস ট্রেনের ব্যবস্থা করা, দ্রুত সিলেটে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, গ্যাস সংযোগ চালু করা ইত্যাদি।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!