শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আমেরিকায় প্রবেশে করতে গিয়ে বাংলাদেশিসহ ৫০ হাজার অভিবাসী আটক

সুরমা নিউজ ডেস্ক :
বিগত কয়েক মাসে অভিবাসনের প্রত্যাশায় গুয়াতেমালা, হন্ডুরাস ও এল সালভাদর থেকে যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তে ভীড় জমিয়েছে লাখো মানুষ। নিজ দেশে নিপীড়ন, দারিদ্র্য ও সহিংসতা থেকে বাঁচতে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা করছে তারা। তবে অবৈধভাবে প্রবেশকারীদের গ্রেফতার, বিচার ও বিতাড়নের হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নীতির প্রবর্তক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।যুক্তরাষ্ট্রে সীমান্ত রক্ষা কর্তৃপক্ষ তাদের ওপর টিয়ার গ্যাস ছুড়েছে।

রেহায় মিলছে না শিশুদেরও। মামলা নিষ্পত্তির আগ পর্যন্ত প্রত্যেককে সীমান্তে আটক রাখার ব্যাপারে অনড় ট্রাম্প। আর সেকারণে মেক্সিকোর সীমান্তবর্তী শহর মেক্সিকালি ও তিজুয়ানায় অস্থায়ী শিবিরে ভীড় জমেছে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের। আটক হওয়া অভিবাসী শিশুদেরকে মার্কিন সরকারের আটককেন্দ্রে হেফাজতে রাখা হয়েছে।

বুধবার শুল্ক ও সীমান্ত ‍সুরক্ষা কর্তৃপক্ষ জানায়, ডিসেম্বরে তারা ৫০ হাজার ৭৫৩ জন অভিবাসীকে আটক করেছেন। এছাড়া প্রবেশের সময় বাধা দেওয়া হয়েছে ১০ হাজার ২৯ জনকে। এর আগে অক্টোবর মাসেও ৬২ হাজার ৪৫৬ জনকে আটক করেছিলো ট্রাম্প প্রশাসন। গত তিন মাসে এই সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

সিবিপি জানায়, অভিবাসীদের ৯৬ শতাংশই মধ্য আমেরিকার দেশ গুয়াতেমালা, এল সালভেদর ও হন্ডুরাস থেকে আগত।তারা সবাই অভিবাসন প্রত্যাশী। নিজ দেশে নিপীড়ন ও সহিংসতা শিকার হয়ে আশ্রয় চান তারা।

এদিকে সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ নিয়ে রিপাবলিকান-ডেমোক্রেট দ্বন্দ্বে টানা তিন সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্রে চলছে শাটডাউন। ২২ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের একাংশে অচলাবস্থা বা শাটডাউন শুরু হয়েছে। এই শাটডাউনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় আট লাখ সরকারি কর্মী। মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ করতে ট্রাম্পের প্রত্যাশিত ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার অনুমোদন করতে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান সদস্যরা একমত হতে না পারায় এই অচলাবস্থা শুরু হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!