শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নিউ ইয়র্কে বিএসিসি’র বার্ষিক হলিডে উৎসব ২০১৯ উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
নিউইয়র্কে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘বিএসিসি হলিডে সেলিব্রেশন ২০১৯’। বাংলাদেশী অধ্যুষিত ব্রঙ্কসের স্টারলিং-বাংলাবাজারের আল আকসা পার্টি হলে গত ৮ জানুয়ারী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিল-বিএসিসি আয়োজিত এ উৎসবে কমিউনিটির উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বাংলাদেশী-আমেরিকানদের এওয়ার্ড প্রদান করা হয়। সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলা এ আয়োজনে পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। ছিলো আকর্ষণীয় ফ্রি র‌্যাফেল ড্র।

যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার অন্যতম সহযোগি সংগঠন বাংলাদেশী-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ট আইনজীবী মোহাম্মদ এন মজুমদারের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী নজরুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে কমিউনিটিকে এগিয়ে নিতে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য ৯ জন ব্যক্তি কে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন : নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের প্রথম বাংলাদেশি-আমেরিকান ক্যাপ্টেন খন্দকার আবদুল্লাহ, নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ ডিপার্টমেন্টের ৪৩ প্রিসেনক্টের ক্যাপ্টেন কীওন র‌্যামসি, ডা. আতাউল চৌধুরী তুষার,সাংবাদিক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম. পার্কচেস্টার রিয়েল এস্টেটের কর্ণধার সালেহ উদ্দিন সাল, কালচারাল এক্টিভিস্ট মার্জিয়া স্মৃতি, বিএসিসি এক্টিভিস্ট ফয়সাল আহমেদ, ট্যালেন্টেড স্টুডেন্ট রুকিয়া আকতার ও তাসনিয়া চৌধুরী। এসময় এওয়ার্ড প্রদানের জন্য তারা আয়োজকদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যুরো অব প্রসপেক্ট পার্কের মেয়র মোহাম্মদ টি খায়েরুল্লাহ, নিউইয়র্ক সিটি পাবলিক এডভোকেট প্রার্থী হেলাল শেখ, ফোবানা ২০১৯ এর কনভেনার নার্গিস আহমেদ, মামুন’স টিউটোরিয়ালের প্রিন্সিপাল শেখ আল মামুন, নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের মাসুদুর রহমান, মাহবুব জুয়েল, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সারওয়ার চৌধুরী , এম রহমান মাসুম ,বেলাল চৌধুরী, মঈনুল ইসলাম, সাখাওয়াত আলী, আবদুল গাফফার চৌধুরী খসরু, মনজুর চৌধুরী জগলুল, হাসান আলী, জালাল চৌধুরী, মেহেরুন্নেসা জোবায়দা, রাশেদ মজুমদার সহ মূলধারার প্রতিনিধি ও কমিউনিটি নের্তৃবৃন্দ। উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, পলাশ খায়ের, আব্দুল তিতুমীর ! ভিন্ন ভাষা-ভাষী মানুষের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠানটি পরিণত হয় সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির এক মিলন মেলায়। প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীদের মনমুগ্ধকর পরিবেশনা মাতিয়ে রাখে হল ভর্তি দর্শক শ্রোতাদের। জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী শাহ মাহবুবের গানে মাতোয়ারা ছিলেন প্রবাসীরা। এছাড়াও সঙ্গীত পরিবেশন করেন জাকির হোসেন ও কামরুন্নাহার রিতা। নিউইয়র্ক সহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেটে বসবাসকারী বাঙালিরাও যোগ দেন এ জমজমাট আয়োজনে।

বক্তারা জমজমাট আয়োজনের ভূঁয়সী প্রশংসা করে আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। নতুন প্রজন্মসহ মূলধারায় বাঙালী সংস্কৃতিকে তুলে ধরার প্রয়াসে সংগঠনটির অনবদ্য ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন বক্তারা।

‘বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিল’ এর সভাপতি মোহাম্মদ এন মজুমদার এবং সাধারণ সম্পাদক নজরুল হক এ উৎসবে সংগঠনের নানা কার্যক্রম তুলে ধরেন। সব সময় তাদের সহযোগিতার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিশেষ ধন্যবাদ জানান তারা। সভাপতি মোহাম্মদ এন মজুমদার প্রবাসে জন্ম নেয়া ও বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের মধ্যে দেশিয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের ধারা টিকিয়ে রাখতে এবং মূলধারায় কমিউনিটির ভূমিকা জোরদারে তাদের পথচলা অব্যহত রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিএসিসি‘র প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন মজুমদার, ভাইস প্রেসিডেন্ট সাখাওয়াত আলী, সেক্রেটারী নজরুল হক, জয়েন্ট সেক্রেটারী আবদুল গাফফার চৌধুরী খসরু, ডাইরেক্টর অব অপারেশন আলমাছ আলী, ডাইরেক্টর অব ফাইনান্স মঞ্জুর চৌধুরী জগলুল, ডাইরেক্টর অব পাবলিক রিলেশন আবদুল ডব্লিউ চৌধুরী, ডাইরেক্টর অব এডুকেশন সার্ভিসেস শেখ আল মামুন, ডাইরেক্টর অব রিলিজিয়ানস এফেয়ার্স সুফিয়ান চৌধুরী, ডাইরেক্টর অব লজিস্টিক সাপোর্ট নূর উদ্দিন, ডাইরেক্টর অব পাবলিক সেফটি কমরেড আকসাদ আলী, ডাইরেক্টর অব সোসাল সার্ভিসেস সারওয়ার চৌধুরী, ডাইরেক্টর অব প্রেস এন্ড পাব্লিকেশন এ ইসলাম মামুন, ডাইরেক্টর অব উইমেন এফিয়ার্স আম্বিয়া অন্তরা, ডাইরেক্টর অব ইউথ এফিয়ার্স ফয়সাল আহমেদ প্রমুখ ৷

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!