মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আনোয়ারুজ্জামানের পক্ষে দেশে-বিদেশে প্রচারণা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিলেট-২ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আনোয়ারুজ্জামানের পক্ষে দেশে-বিদেশে বিরামহীন প্রচারণা অব্যাহত রয়েছে। ইতিমধ্যে লন্ডনে ওসমানীনগরের বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রবাসীরা তার পক্ষে পৃথকভাবে জনসংযোগ করেছেন। দেশেও প্রতিটা গ্রাম মহল্লায় নেতাকর্মীরা চালিয়ে যাচ্ছেন দিনরাত প্রচারণা।

বিশ্বনাথ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মুহিবুর রহমান সুরমা নিউজকে বলেন, গত কিছুদিন এলাকায় ঘুরে দেখলাম সততা, ন্যায়নিষ্ঠা ও বলিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতৃত্বের অধিকারী তরুণ নেতা আনোয়ারুজ্জামানকে নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চায়। আমাদের বিশ্বাস জননেত্রী শেখ হাসিনা তার বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে তৃণমুলের জরিপ পেয়েছেন। সেটা পেলেই আমরা নিশ্চিত এই আসনের নৌকার মাঝি আনোয়ারুজ্জামান।

সিলেট-২ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, তৃণমূল থেকে উঠে এসে আমি দলের জন্য কাজ করছি। বিগত বছরগুলোতে এলাকায় মানুষের দুয়ারে দুয়ারে গিয়েছি। দুই উপজেলার (বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগর) অধিকাংশ নেতাকর্মীদের ভালোবাসা পেয়েছি। তারাই আমাকে প্রেরণা যুগিয়েছেন এতোটা পথ পারি দিতে। এলাকার মানুষের বিশাল জনসমর্থন নিয়ে গত রবিবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস আমার প্রাণপ্রিয় নেত্রী এলাকার মানুষের প্রত্যাশা পুরণে আমাকে নৌকার মনোনয়ন দিবেন। ইনশাল্লাহ নৌকাকে বিজয়ী করে অত্র আসনটি আমি নেত্রীকে উপহার দিতে চাই।

আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী আরো বলেন, ‘সিলেট-২ প্রবাসী অধ্যুষিত এলাকা। এই এলাকার প্রায় এক লাখ মানুষ যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের নানা প্রান্তে রয়েছেন। তাদের ভূমিদখল বড় একটি সমস্যা। আমি মনোনয়ন পেলে এই সমস্যার সমাধানে সচেষ্ট থাকব। এ ছাড়া এলাকাবাসীর দাবি, রাস্তা সংস্কার, আন্তর্জাতিকমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা, ট্রমা সেন্টার স্থাপন, মসজিদ-মাদ্রাসা গড়ে তোলার মতো কাজ প্রাধান্য পাবে।’ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের রোল মডেল— সেই ধারা অব্যাহত রাখার শপথ নিয়েছেন আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের হাত শক্তিশালী করতে তার নির্দেশ মতই কাজ করব আমি।’ আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী মনোনয়নপত্র কেনার পর থেকেই এলাকায় আলোচনার ঝড় উঠেছে।  জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুতফর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আ ন ম শফিকুল হক, মুক্তিযোদ্ধা কবিরউদ্দিন আহমদ, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তাফুর রহমান মফুর, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদাল মিয়া, জেলা যুবলীগের প্রেসিডেন্ট শামিম আহমদ, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, ওসমানীনগর উপজেলা  যুবলীগের সভাপতি আনা মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আলতাফুর রহমান সোহেল, বিশ্বানাথ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট সিরাজ, বিশ্বানাথ যুবলীগের প্রেসিডেন্ট আশিক আলী,  ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেনসহ স্থানীয় জনগণ ও নেতা-কর্মীরা তার পক্ষে ইতিমধ্যে প্রচারণা ও মিছিলে অংশ নিচ্ছেন।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!