মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেট-২ আসনে মনোনয়ন জমা দিলেন ইলিয়াস পুত্র আবরার

সুরমা নিউজ:

সিলেট-২ আসনে বিএনপি’র মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির নিখোঁজ নেতা এম ইলিয়াস আলীর বড় ছেলে ব্যারিস্টার আবরার ইলিয়াস। বিকালে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে নিজের ও মা তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন ফরম দুটি জমা দেন আবরার ইলিয়াস।

এর আগে এই আসনে ইলিয়াস আলীর সহধর্মিনী লুনাই ছিলেন বিএনপির একক মনোনয়ন প্রত্যাশী। এবার একই আসনে ছেলে আবরারও মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। রাজনৈতিক কৌশল হিসেবেই এমনটা করা হয়েছে বলে জানান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও ইলিয়াস আলীর পত্নী তাহসিনা রুশদীর লুনা। তিনি বলেন এই আসনে আমারই নির্বাচন করার ইচ্ছা। ছেলে করবে না। একটা কৌশল হিসেবে আবরার মনোনয়ন জমা দিয়েছে, যদি কোন কারণে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করে তবে এই আসনে সে নির্বাচন করবে। নিজের মনোনয়নপত্র বাতিল হবার মতো কোন কারণ রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে লুনা বলেন, এমন আশঙ্কাতো উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। বর্তমান নির্বাচন কমিশনের উপর শতভাগ আশ্বস্ত হবার মতো কিছু নেই। এমতাবস্থায় দুজনের মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়েছে।

বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক বশির আহমদ জানান, আজ বিকেলে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দুটি মনোনয়ন ফরম জমা প্রদান করা হয়। এসময় সিলেট জেলা বিএনপি, বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা সাথে ছিলেন। কেন মা-ছেলে উভয়েই মনোনয়ন চাইলেন সে সম্পর্কে তিনি বলেন, যদি কোনো কারণে ম্যাডামের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয় সেক্ষেত্রে ইলিয়াসপুত্রই হবেন এই আসনে বিএনপির কান্ডারি। আমাদের কাছে তারা আমাদের পরিবার, যিনি প্রার্থী হবেন তাকেই বিজয়ী করতে আমরা প্রাণান্ত পরিশ্রম করবো।

এদিকে নিখোঁজ ইলিয়াস আলীর বড় ছেলে মনোনয়ন ফরম জমা দিতে গেলে সেখানে এক আবেগঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। উপস্থিত নেতাকর্মীরা তাকে জড়িয়ে ধরেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশী ও তাদের সঙ্গে আগত নেতাকর্মীদের ভিড়ের কারণে কার্যালয়ে যাননি তাহসিনা রুশদীর লুনা। তার সঙ্গে আগত সিলেট জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে তিনি ওই সময় কার্যালয়ের নীচে অবস্থান করছিলেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!