মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দুই সিঁড়ির মাঝে পড়ে ঝুলে গেলো শিশু, তিন ঘন্টা পর উদ্ধার

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
বিকেলে খেলতে গিয়ে স্কুল ছাত্র আবদুল সামির হৃতম (১০) নামে এক শিশু দুই সিঁড়ির মাঝখানে আটকে যায়। এতে তার দেহ ঝুলে থাকলেও আটকে যায় মাথা, তিন ঘন্টা চেষ্টার পর ফায়ার সার্ভিস দেয়াল কেটে শিশুটিকে উদ্ধার করেছে। ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের ধোনসাহাদ্দা গ্রামে। আবদুল সামির হৃতম স্কুলের পাশ্ববর্তী কাজী কবির আহাম্মদের বাড়ির প্রবাসী আবদুর রহিম বাবুলের ছেলে।

ফেনীর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উপসহকারী পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম ভূঞা জানান, মঙ্গলবার বিকালে ধোনসাহাদ্দা উচ্চ বিদ্যালয় নতুন ভবনে খেলা করছিলো ধোনসাহাদ্দা ব্রাইট কিন্ডারগার্টেনের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র আবদুল সামির হৃতম ও তার সহপাঠীরা। খেলতে গিয়ে হঠাৎ পা পিছলে হৃতম ভবনের দুই সিঁড়ির (র‌্যাম্প) মাঝে আটকে ঝুলে যায়। সহপাঠী হাসিন রায়হান অনিক ঘটনা দেখে হতচকিত হয়ে চিৎকার শুরু করে। তার চিৎকার শুনে পাশবর্তী দোকান থেকে লোকজন ছুটে এসে ঝুলন্ত শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালান। ঝুকিপূর্ণ দেখে সাথে সাথে তারা ৯৯৯ এ কল করে সমস্যার কথা জানান ও লোকেশন বলেন। খবর পেয়ে ফেনী থেকে ফায়ার সার্ভিস ইউনিট তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে। প্রায় তিন ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে তারা দেয়াল কেটে শিশুটিকে নিরাপদে উদ্ধার করেন। সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিস এ্যাম্বেুলেন্স যোগে তাকে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে শিশু আটকে ঝুলে থাকার খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের কয়েক গ্রামের হাজার হাজার নারী পুরুষ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ দেখতে।

ফেনী সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ফয়েজুল কবির বলেন, শিশুর শারিরিক অবস্থা ভালো আছে। বুধবার সিটিস্ক্যান করা হবে। হাসপাতালের অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা বিষয়টি তদারকি করছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!