রবিবার, ২২ জুলাই, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
সিলেট নগরে নৌকা মার্কার জোয়ার উঠেছে : আসাদ উদ্দিন  » «   শাল্লায় ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও’ আন্দোলনের উপজেলা পর্যায়ে প্রথম সম্মেলন  » «   কমলগঞ্জে শতভাগ পাশ শমশেরনগর বিএএফ শাহীন কলেজ  » «   এবার ব্যর্থ হয়ে ফিরলেন আরিফ, কামরান বললেন ‘নাটক’  » «   কমলগঞ্জে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক  » «   সিলেটে যুবলীগ নেতার রেস্টুরেন্টে শিবিরের হামলা  » «   নৌকা প্রতীকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে শফিকুর রহমানের গণসংযোগ  » «   ২ কর্মীকে ছাড়াতে পুলিশ কার্যালয়ের সামনে আরিফসহ বিএনপি নেতাদের অবস্থান  » «   বাংলাদেশি যেসব পেশাজীবীদের জন্য উন্মুক্ত হলো আরব আমিরাত…  » «   একসঙ্গে ৬ মৃত সন্তান প্রসব মৌসুমীর  » «  

কমলগঞ্জের লাঘাটা নদীতে অবৈধ বাঁশের খাঁটি ও কারেন্ট জালে সয়লাব


মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লাঘাটা নদীতে অবৈধ বাঁশের খাঁটি স্থাপন করা হয়েছে। ফলে পানি নিস্কাশনে প্রতিবন্ধকতা এবং নানা জাতের জলজ প্রাণী ধ্বংসপ্রাপ্ত হচ্ছে এবং পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি বয়ে আনছে। এছাড়া লাঘাটা ও পলক নদীতে নিষিদ্ধ কারেন্ট জালে সয়লাব হয়ে পড়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, সাম্প্রতিক ভয়াবহ বন্যার পর একশ্রেণীর অসাধু মাছ শিকারী চক্র লাঘাটা ও পলক নদীর বিভিন্ন স্থানে অবৈধ বাঁশের খাঁটি স্থাপন করে পানি নিস্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। এতে নানা জাতের জলজ প্রাণী ধ্বংসপ্রাপ্ত হচ্ছে এবং পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি বয়ে আনছে। প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে এভাবে জলাধারকে কেন্দ্র করে শত শত বাঁশের খাঁটি ও কারেন্ট জাল ফেলে মাছ শিকার করছে। মাছের সাথে কারেন্ট জালে ব্যাঙ, সাপ, কুচিয়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির জলজ প্রাণীর মৃত্যু ঘটছে। স্থানীয় হাটবাজার সমুহে অবাধে নিষিদ্ধ এসব কারেন্ট জাল বিক্রি হচ্ছে।

পতনঊষার ইউনিয়নের লাঘাটা সেতুর নিচে সেতু সংলগ্ন বিভিন্ন স্থানে অবৈধ বাঁশের খাঁটি (বেড়া) ও পলক নদীর উপর বাঁশের খাঁটি স্থাপন করা হয়েছে। মৎস্য আইনে নিষিদ্ধ এসব বাঁশের খাঁটি স্থাপন করার ফলে পানি নিস্কাশন ও মাছের অবাধ গতিপ্রবাহে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্ট হচ্ছে। বাঁশের খাঁটির সাথে স্থাপিত মাছ ধরার খাঁচায়ও (পারন) কুচিয়া, সাপসহ নানা প্রজাতির জলজ প্রাণি ধরা পড়ছে এবং মারা যাচ্ছে।

হাওর ও নদী রক্ষা কমলগঞ্জ আ লিক কমিটির সদস্য সচিব তোয়াবুর রহমান তবারক. পতনঊষারের সমাজকর্মী আনোয়ার খানসহ স্থানীয়রা বলেন, সাম্প্রতিক বন্যার পর পরই লাঘাটা ও পলক নদীতে অসংখ্য বাঁশের খাঁটি স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া লাঘাটা ও পলক নদীর বিভিন্ন স্থানে নিষিদ্ধ কারেন্ট জালে সয়লাব হয়ে পড়েছে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানালেও তারা কোন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।

কমলগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শাহাদাত হোসেন বলেন, লাঘাটা ও পলক নদীতে অবৈধভাবে বাঁশের খাঁটি ও কারেন্ট জাল এর বিষয়ে শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!