সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
সিলেট-৩ আসনে প্রার্থীজট : কে হচ্ছেন নৌকার, ধান ও লাঙ্গলের কাণ্ডারি?  » «   সিলেটে চার ছাত্রদল নেতার রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর  » «   মালয়েশিয়ায় ৫৫ জন বাংলাদেশি আটক  » «   সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সকালে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন, সন্ধ্যায় মশাল মিছিল  » «   নবীগঞ্জে ‘হায় হোসেন হায় হোসেন’ ধ্বনিতে পবিত্র আশুরা পালিত  » «   উন্নয়নের জন্য নৌকার মাঝি হতে চান শফিক চৌধুরী  » «   অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক নির্বাচিত হলেন কবির আল মাহমুদ  » «   নবীগঞ্জে শিক্ষকের অবহেলায় সমাপনী টেস্ট পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হল আট শিক্ষার্থী  » «   হবিগঞ্জে হাত-মুখ বাধা অবস্থায় সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার  » «   ‘হায় হাসান-হায় হুসেন’ মাতমে ওসমানীনগরে আশুরা পালিত  » «  

টেস্ট অভিষেক রাঙাতে চান সিলেটের রাহী

স্পোর্টস ডেস্ক:

গত ফেব্রুয়ারিতে সিলেটের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল আবু জায়েদ রাহীর। ৪ মাস পরই ডাক পেলেন টেস্ট দলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘোষিত ১৫ জনের টেস্ট দলে জায়গা পেয়েছেন ২৪ বছর বয়সী এই পেসার। টি-টোয়েন্টিতে নিজের শুরুটা নিয়ে সন্তুষ্ট নন রাহী। তাই সুযোগ পেলে টেস্টের অভিষেকটা স্মরণীয় করতে চান তিনি।

টেস্টের একাদশে ডাক পেলে দারুণ কিছু করে দেখাতে আত্মবিশ্বাসী ৩ টি-টোয়েন্টিতে ৪ উইকেট নেওয়া রাহী। ৪ জুলাই থেকে শুরু এই সিরিজে জায়গা পাওয়ায় উচ্ছ্বসিত এই পেসার বাংলা ট্রিবিউনকে জানালেন, ‘টেস্টে দলে ডাক পাওয়ার অপেক্ষায় ছিলাম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই সুযোগ পেয়ে ভালো লাগছে। ওখানে উইকেট পেসারদের জন্য দারুণ উপযোগী। আশা করি সুযোগ পেলে টি-টোয়েন্টির চেয়েও টেস্টে ভালো করতে পারব। যদিও আমি জানি, আমাকে কঠিন চ্যালেঞ্জ নিয়েই মাঠে নামতে হবে। সুযোগ পেলে অবশ্যই টেস্ট অভিষকটা রাঙিয়ে দিতে চাইব।’

ঠিক কী কারণে আত্মবিশ্বাসী রাহী? মূলত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ভালো খেলার অভিজ্ঞতাই তাকে আশাবাদী করে তুলছে। ৬২ ম্যাচে ১৯২ উইকেট নিয়েছেন এই পেসার। লম্বা ফরম্যাটে নিজের অভিজ্ঞা নিয়ে রাহী বলেছেন, ‘টেস্টের প্রতি আলাদা আবেগ আমার আগে থেকেই আছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে এই সংস্করণে অনেকদিন ধরেই খেলছি। ওখানে নিয়মিত উইকেটও পেয়ে আসছি। যে কারণে আমার আত্মবিশ্বাসটা ভালো। আশা করি নির্বাচকদের আস্থার প্রতিদান দিতে পারব।’

আফগানিস্তান সিরিজ শেষে দেশে ফিরে কোর্টনি ওয়ালশের অধীনে অনুশীলন করছিলেন বেশ কয়েক জন ক্রিকেটার। ওই অনুশীলনে বোলিং কোচের কাছ থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেট সম্পর্কে জেনেছেন বলে জানালেন রাহী, ‘কিছুদিন আগে অনুশীলন করেছিলাম। আমাদের সঙ্গে তখন ওয়ালশ ছিলেন। তার কাছ থেকে ধারণা নেওয়ার চেষ্টা করেছি। ধারাবাহিকভাবে ধৈর্য্য ধরে এক জায়গায় বোলিং করে যেতে হবে। আমি বোলিংয়ের বৈচিত্র নিয়ে কাজ করেছি। আশা করি নিজেকের প্রমাণ করতে পারব।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!