রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
আমার বাবা-ভাইকে ফাঁসানো হয়েছে -সংবাদ সম্মেলনে কন্ঠশিল্পী রুহী  » «   বিশ্বনাথে বখাটের উৎপাতে প্রাণ গেল কলেজছাত্রীর!  » «   আক্ষেপ ফুরোচ্ছে সিলেটের : শুরুতে নিজেদের শেষটা রাঙাতে চায় বাংলাদেশ  » «   লন্ডন প্রবাসী সিলেটের সাফওয়ান জাতীয় বক্সিংয়ে চ্যাম্পিয়ন  » «   ব্রি‌টে‌নে ১০ বছ‌রে সবচেয়ে বড় ভূ‌মিকম্প অনুভূত  » «   সিলেটে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন, শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী আটক  » «   অবসরের সিদ্ধান্ত অর্থমন্ত্রীর!  » «   জগন্নাথপুরে জমি নিয়ে বিরোধের সংঘর্ষে প্রবাসী নিহত, আহত ১০  » «   ১৫ বছরের আক্ষেপ কাটল মদন মোহন কলেজ ছাত্রলীগের  » «   দক্ষিণ ছাতক উন্নয়ন পরিষদ সিলেটের কমিটি পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত  » «  

সিলেটে পাথর কোয়ারীতে অভিযান : ১৫টি লিস্টার মেশিন ধ্বংস

কানাইঘাট সংবাদদাতা:
সিলেটের কানাইঘাটের লোভাছড়া পাথর কোয়ারীতে অভিযান চালানো হয়েছে। আজ বুধবার বেলা দেড়টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানার নেতৃত্বে পাথর কোয়ারী এলাকায় ইজারার শর্ত অমান্য করে বড় বড় পুকুরের মতো গর্ত তৈরি করে পাথর উত্তোলনকালে ১৫টি লিস্টার মেশিন ধ্বংস করা হয়। এসময় পাথরখেকু ব্যবসায়ীদের নামের তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
কানাইঘাটের সীমান্তবর্তী লোভাছড়া পাথর কোয়ারী থেকে ইজারার শর্ত অমান্য করে যান্ত্রিক চালিত মেশিনের সাহায্যে বড় বড় গর্ত তৈরি করে পাথর উত্তোলন অব্যাহত রয়েছে। ইজারার নির্দেশ অমান্য করে কতিপয় পাথর ব্যবসায়ীরা কোয়ারীর লীজ এবং লীজ বর্হিভূত এলাকা থেকে কয়েক শ’ বড় বড় গর্ত তৈরি করে পাথর উত্তোলন করায় পরিবেশ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন পাথর কোয়ারীতে অভিযান অব্যাহত রাখলেও কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন চলছে।
পাথর কোয়ারীর ক্ষতবিক্ষত সাউদগ্রাম, বড়গ্রাম, ডাউকেরগুল, তেরহালী, সতিপুর এলাকায় বুধবার অভিযান পরিচালনা করা হয়। কিন্তু কোয়ারীতে অভিযানের খবর পেয়ে যারা গর্ত থেকে যান্ত্রিক চালিত মেশিনের সাহায্যে পাথর উত্তোলন করছে সেই সব পাথর ব্যবসায়ীরা তাদের যন্ত্রপাতি অন্যত্র সরিয়ে ফেলেন। অভিযানকালে কয়েকজন পাথর ব্যবসায়ীর নামের তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের জন্য নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা কানাইঘাট থানার ওসি (তদন্ত) নুনু মিয়াকে নির্দেশ দেন।
কোয়ারীতে অভিযান কালে নির্বাহী কর্মকর্তা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান- কোয়ারী এলাকায় প্রশাসনের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত রয়েছে। যারা ইজারা শর্ত লঙ্ঘন করে পরিবেশের ক্ষতি করে পাথর উত্তোলন করছেন তাদের নামের তালিকা সংগ্রহ করা হচ্ছে। এ সব পাথর খেকো ব্যবসায়ীদের কোন ছাড় দেওয়া হবে না। দু’একদিনের মধ্যে তাদের সঠিক তালিকা করে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হবে। কোয়ারী এলাকার পরিবেশ রক্ষা করতে প্রশাসনের পাশাপাশি তিনি সচেতন মহলকেও এগিয়ে আসার আহবান জানান।
অভিযানের সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি লুসি কান্ত হাজং, থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ নুনু মিয়া, সুরইঘাট বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার শহিদুল ইসলাম, লোভাছড়া বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার মামুন রশিদ সহ উপজেলা ভুমি অফিসের কর্মকর্তারা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ