রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
আমার বাবা-ভাইকে ফাঁসানো হয়েছে -সংবাদ সম্মেলনে কন্ঠশিল্পী রুহী  » «   বিশ্বনাথে বখাটের উৎপাতে প্রাণ গেল কলেজছাত্রীর!  » «   আক্ষেপ ফুরোচ্ছে সিলেটের : শুরুতে নিজেদের শেষটা রাঙাতে চায় বাংলাদেশ  » «   লন্ডন প্রবাসী সিলেটের সাফওয়ান জাতীয় বক্সিংয়ে চ্যাম্পিয়ন  » «   ব্রি‌টে‌নে ১০ বছ‌রে সবচেয়ে বড় ভূ‌মিকম্প অনুভূত  » «   সিলেটে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন, শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী আটক  » «   অবসরের সিদ্ধান্ত অর্থমন্ত্রীর!  » «   জগন্নাথপুরে জমি নিয়ে বিরোধের সংঘর্ষে প্রবাসী নিহত, আহত ১০  » «   ১৫ বছরের আক্ষেপ কাটল মদন মোহন কলেজ ছাত্রলীগের  » «   দক্ষিণ ছাতক উন্নয়ন পরিষদ সিলেটের কমিটি পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত  » «  

জুড়ীতে সংঘর্ষে ১জন নিহত, আহত ২৫

জুড়ী প্রতিনিধি :
জুড়ী উপজেলার পূর্ব জুড়ী গ্রামে সংঘর্ষে একজন মুক্তিযোদ্ধা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন পথচারীসহ প্রায় ২৫ জন।  এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  থানায় কোন মামলা হয়নি। জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, ভাইস চেয়ারম্যান, এএসপি সার্কেল (কুলাউড়া) সহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জানা যায়, জামকান্দি গ্রামের জনৈক জমির মিয়া গত সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় বাসিন্দা সোনারূপা চা বাগানের শ্রমিক হরিলালের সাথে দেখা করতে তার বাড়ীতে যান। এ সময় হরিলাল বাড়ীতে না থাকায় তার স্ত্রীর সাথে বাগান শ্রমিক স্বপনের ছেলে সঞ্জুকে অনৈতিক কাজে দেখতে পেয়ে বাধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সঞ্জু হাতে থাকা লাইট দিয়ে জমিরের উপর হামলা করলে তার মাথা ফেটে যায়। স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় জমির মিয়াকে উদ্ধার করে জুড়ীতে একটি বেসরকারী হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় জমিরের দুই আত্নীয় বুধবার সকালে সোনারতন নামক এক শ্রমিকের উপর হামলা করলে বাগানে পাগলা ঘন্টি বাজিয়ে ৪/৫শত শ্রমিক দা, খুন্তিসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে স্থানীয়দের উপর হামলা চালায়।

এদিকে মসজিদে হামলার ঘটনা মাইকে ঘোষণা দিয়ে মুসল্লীরাও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খবর পেয়ে জুড়ী থানার পুলিশ এবং অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে কুলাউড়া সার্কেলের এএসপি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

শ্রমিকদের হামলায় মুক্তিযোদ্ধা ইয়াছিন মিয়া (৬৫), তাঁর পুত্র শাহিন (৩৫), লিমন (১৮), হেলাল মিয়া (৪০), কাশেম মিয়া (৪০) ও আব্দুল আলী (৪০) আহত হন।

এছাড়া হামলায় শ্রমিকদের ছুড়া চিয়াড়ীর ভয়ে জামকান্দি-দক্ষিণভাগ সড়কের পথচারী ও যাত্রীরা প্রাণরক্ষার্থে দৌড়াদৌড়ি শুরু করলে আঘাতপ্রাপ্ত হন আরও ১৫/২০জন আহত হন।

আহতরা দক্ষিণভাগ, জুড়ী, কুলাউড়া ও সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ও ভর্তি করা হয়। গুরুত্বর আহতাবস্থায় ইয়াছিন আলী, শাহিন ও লিমনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল সাড়ে তিনটায় মুক্তিযোদ্ধা ইয়াছিন মিয়া মারা যান এবং শাহিনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা যায়। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ