মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
সন্ধান মিলেছে নিখোঁজ এমসি কলেজ শিক্ষার্থী সাজ্জাদের  » «   সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ২ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার, থানায় জিডি  » «   কমলগঞ্জে বিশ্বকর্মা পুজায় দুষ্কৃতিকারীর হামলায় মহিলাসহ আহত ৬  » «   নবীগঞ্জে কুশিয়ারা বুকে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে বিদ্যুৎ গ্রাহকদের আতঙ্ক ‘ভূতুড়ে বিল’  » «   বিশ্বনাথে ১২ দিনেই জমি নামজারির সুযোগ পাচ্ছেন প্রবাসীরা  » «   মৌলভীবাজারের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক রাজাকার আনিছের মৃত্যু  » «   সিলেটে দুর্ভোগের অবসান হচ্ছে বিদ্যুতের প্রি-পেইড গ্রাহকদের  » «   সিলেট কারাগারে ফের মালি রাগীব আলী  » «   ১৪২ কয়েদির মুক্তির রেকর্ড সিলেট কারাগারের  » «  

বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত হবে বাংলায়

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমায় এবার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি একজন আলেম। তিনি মোনাজাত করবেন বাংলায়। মোনাজাতের আগে হেদায়াতি বয়ানও হবে বাংলায়। বিশ্ব ইজতেমার ইতিহাসে এবারই প্রথম বাংলাতে হেদায়াতি বয়ান ও মোনাজাত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, শুক্রবার রাতে তাবলিগ জামাতের মুরব্বিদের এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে এবার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের শুরা সদস্য মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ যোবায়ের। আখেরি মোনাজাতের আগে হেদায়াতি বয়ান করবেন বাংলাদেশের মাওলানা আব্দুল মতিন।

আগামীকাল রবিবার শেষ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। বেলা ১১টার দিকে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চার দিন বিরতির পর আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমা। ১৯৬৫ সাল থেকে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সাধারণত ইজতেমায় হেদায়াতি বয়ান ও আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন দিল্লি মারকাজ থেকে আসা মুরব্বিরা। দীর্ঘদিন ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেছেন দিল্লির মাওলানা যোবায়েরুল হাসান।

২০১৪ সালে তার ইন্তেকালের পর থেকে মোনাজাত পরিচালনা করে আসছেন দিল্লির মাওলানা সাদ। তবে এবার তাকে নিয়ে বিতর্ক চরম আকার ধারণ করে। আলেমদের প্রবল বিরোধিতার মুখে সরকারি সিদ্ধান্তে তাকে দিল্লি ফিরে যেতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে শনিবার সকালে তিনি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এবারের বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতের জন্য নির্বাচিত মাওলানা মোহাম্মদ যোবায়ের দীর্ঘদিন ধরে তাবলিগ জামাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তিনি লালবাগ মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। কাকরাইল মসজিদ সংলগ্ন মাদ্রাসার পরিচালক তিনি। তাবলিগ জামাতের শুরা সদস্য। ইজতেমার মাঠে তিনি দীর্ঘদিন ধরে বয়ান করে আসছেন এবং বিদেশি মেহমানদের বয়ান অনুবাদও করেছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

error: Content is protected !!