বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
সিলেটে গাছের সঙ্গে ট্রাকের ধাক্কা : প্রাণ গেল ২ জনের  » «   সিলেটে দেশের ৩য় বৃহত্তম চিড়িয়াখানা, চালু হচ্ছে সীমিত জনবল নিয়ে  » «   ছাত্রলীগকর্মী তানিম হত্যা : আসামী ডায়মন্ড ও রুহেল ৫ দিনের রিমান্ডে  » «   জামেয়া গহরপুর মাদ্রাসার ৬১ তম বার্ষিক মাহফিল আজ  » «   সিলেটে অস্ত্রসহ হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার  » «   কার্ডিফের মতো সিলেট গড়তে চাই : মেয়র আরিফ  » «   সুনামগঞ্জে বোরো আবাদ : কৃষকদের চরম হতাশা, লক্ষ্যমাত্রা সোয়া ২ লাখ হেক্টর জমি  » «   সিলেটে পাথর কোয়ারীতে অভিযান : ১৫টি লিস্টার মেশিন ধ্বংস  » «   সিলেটে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ওসমানী স্মৃতি পরিষদের শীতবস্ত্র বিতরণ  » «  

দুই দিন পর শীত কমার আভাস

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
পৌষ মাসের শেষে এসে আট দিন ধরে দেশজুড়ে বইছে শৈত্যপ্রবাহ। এসময় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছিল তেঁতুলিয়ায়।

 গত ৩ জানুয়ারি থেকে শৈত্যপ্রবাহ বইছে। বৃহস্পতিবারও টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শ্রীমঙ্গল, কুমিল্লা, ফেণী, সীতাকুণ্ড ও হাতিয়া অঞ্চলসহ রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্য প্রবাহ বয়ে যাচ্ছিল।
এরপর পরিস্থিতির ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যশোরে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সব বিভাগের অধিকাংশ এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম  জানান, “উত্তরী হাওয়ার সঙ্গে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য কমে আসায় সর্বত্র তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে।

“বিরাজমান শৈত্য প্রবাহ আরও দু’দিন অব্যাহত থাকতে পারে। ১৪ জানুয়ারির পর কোথাও কোথাও রাতের তাপমাত্রা বাড়বে। এতে পরিস্থিতির উন্নতি হবে।”

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ