বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আজ দেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা : ভাঙলো ৫০ বছরের রেকর্ড

সুরমা নিউজ ডেস্ক:
শীতে কাঁপছে সারাদেশ। হিমেল হাওয়া ও তীব্র শৈত্যপ্রবাহে বেশি কাঁপছে দেশের উত্তরের জনপদ। সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ৫০ বছরের রেকর্ড ভাঙলো সোমবার (৮ জানুয়ারি) সকালে। এদিন হিমালয়ের কোলঘেঁষা জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশ স্বাধীনের পর এটাই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।
দেশের উত্তরে কদিন ধরে চলা তীব্র শৈত্যপ্রবাহ এদিন আরও মারাক্তক আকার ধারণ করে। নীলফামারীর সৈয়দপুরেও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সবশেষ ২০১৩ সালের ১১ জানুয়ারি এ জেলার মানুষ ৩ ডিগ্রি তাপমাত্রা দেখেছিল।
১৯৬৮ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি দেশের শীতলতম স্থান সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটাই এতোদিন ছিল দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড।
সোমবার সকালে আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, এটাই বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।
আবহাওয়াবিদরা জানান, শৈত্যপ্রবাহ ছড়িয়ে পড়ছে। তবে দু’একদিনের মধ্যে কমতে শুরু করবে।
সৈয়দপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২.৯
গত কয়েকদিনের তীব্র শৈত্যপ্রবাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। দেশের উত্তরাঞ্চলসহ প্রায় সব জায়গাতেই চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে মানুষজন। ঢাকায় এদিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ৫ থেকে ৭ ডিগ্রিতে তাপমাত্রা নামার রেকর্ড পাওয়া গেছে।
আবহাওয়া অফিস থেকে প্রাপ্ত সবশেষ আপডেট অনুযায়ী, রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের উপর দিয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। শ্রীমঙ্গল ও সীতাকুণ্ড অঞ্চলসহ ঢাকা, ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগ এবং রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এই আবহাওয়া আরও কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ